logo
news image

তুলে রাখা মাংস

অনেক সময়ই বাড়ির জন্য একসঙ্গে বেশি করে মাংস কেনা হয়। গরমের সময় মাংস যথাযথভাবে সংরক্ষণ করাটা জরুরি। মাংস সংরক্ষণে কোনো ত্রুটি থাকলে তা কমিয়ে দিতে পারে খাবারের স্বাদ।
অনেকেই মনে করেন, মাংস তাজা ও টাটকা অবস্থায় রান্না করাই সব থেকে ভালো। এতে মাংসের স্বাদ ও পুষ্টিগুণ বজায় থাকে। বেঙ্গল মিটের কোয়ালিটি এস্যুরেন্স বিভাগের প্রধান নির্বাহী মো. আনোয়ার পারভেজ বাড়িতে দুই থেকে তিন মাসের বেশি সময় মাংস সংরক্ষণ না করার পরামর্শ দেন। বাড়িতে ডিপ ফ্রিজারের তাপমাত্রা মাইনাস ৮ ডিগ্রির বেশি কমানো সম্ভব হয় না। তাই বেশি দিন সংরক্ষণে মাংসের পুষ্টিগুণ কমে যায়। মাংস আনার পর ভালোভাবে রক্ত ঝরিয়ে বায়ুরোধী পলিথিনে ডিপে রেখে দিতে হবে। মাংস ডিপে রাখার পর বারবার ফ্রিজ খোলা থেকে বিরত থাকার পরামর্শ দেন তিনি।

ফ্রিজ না থাকলে
ফ্রিজ না থাকলেও সিদ্ধ করে মাংস সংরক্ষণ করা সম্ভব। মাংস বড় বড় করে কেটে, ভালো করে ধুয়ে পানি ঝরিয়ে নিতে হবে। হাঁড়িতে তেল গরম করে ভালোভাবে রান্না করে নিতে হবে, যেন মাংস পুরোপুরি সিদ্ধ হয়ে যায়। বাতাসের সংস্পর্শে যাতে না আসে, তাই মাংস তেলে ডুবো ডুবো অবস্থায় রাখতে হবে। দু-এক দিন পর পর মাংস ভালোভাবে জ্বাল দিতে হবে। এভাবে দু-তিন সপ্তাহ মাংস সংরক্ষণ করা যায়। এ ছাড়া রোদে শুকিয়েও মাংস অনেক দিন রাখা যায়। মাংসের চর্বি একটা বড় সমস্যা। চর্বি শরীরের জন্য ক্ষতিকর, আবার রান্নার সময়ও ঝামেলা হতে পারে। তাই বিক্রেতাকে আগেই চর্বি কাটার জন্য বলে রাখা ভালো অথবা নিজেরাই কেটে নিতে পারেন।

যেসব বিষয়ে খেয়াল রাখা দরকার
 প্রথমেই ফ্রিজ ভালোভাবে পরিষ্কার করে নিতে হবে। কারণ, দীর্ঘদিন মাংস সংরক্ষণের জন্য ফ্রিজ পরিষ্কার থাকা খুবই জরুরি। ফ্রিজে আগের মাছ ও মাংসের কারণে গন্ধ হওয়ার সম্ভাবনা বেশি থাকে।
 মাংস সংরক্ষণের আগে অবশ্যই ভালোভাবে রক্ত ধুয়ে পরিষ্কার করে নিতে হবে। ধোয়ার পর অতিরিক্ত পানি ঝরানোর জন্য বড় ঝুড়িতে রেখে দিতে হবে। মাংস থেকে পানি ঝরে গেলে পলিথিন বা প্লাস্টিকের প্যাকেটে রেখে ভালোভাবে মুখ পেঁচিয়ে বা বন্ধ করে ফ্রিজে রাখতে হবে।
 মাংস প্রথম তিন থেকে চার ঘণ্টা পর্যন্ত শক্ত থাকে। এই সময় মাংস ফ্রিজে না রাখাই ভালো। মাংস খানিকটা নরম হলে সংরক্ষণ করতে হবে।
 ফ্রিজে রাখার ক্ষেত্রে খেয়াল রাখতে হবে যেন মাংসের টুকরা বেশি বড় না হয়। ছোট ছোট টুকরা করে মাংস সংরক্ষণ করা ভালো।
 ফ্রিজে সংরক্ষণের জন্য মোটা ও ভালো মানের পলিথিন বেছে নেওয়া উচিত।
 মাংস সংরক্ষণের জন্য অবশ্যই নতুন ও পরিষ্কার প্যাকেট ব্যবহার করতে হবে। পুরোনো বা আগের ব্যবহৃত পলিথিন ব্যবহার করলে মাংস গন্ধ হয়ে যেতে পারে।
 ফ্রিজে মাংস রাখার পর তাপমাত্রা কমিয়ে দিতে হবে। এতে মাংস তাড়াতাড়ি জমবে।

কমেন্ট করুন

...

সাম্প্রতিক মন্তব্য

Top