logo
news image

পিতার পর পুত্রের আত্মহত্যা

লালপুর (নাটোর) প্রতিনিধি
সৌদি প্রবাসী  পিতার রহস্যজনক মৃত্যুর দেড় বছরের মাথায় আত্মহত্যার পথ বেছে নিলেন প্যারামেডিক্যাল ছাত্র মুশফিকুর রহমান মাসুক (২২)।
শুক্রবার (২০ জানুয়ারি ২০২৩) সন্ধ্যায় লালপুর ডিগ্রী কলেজ মাঠে জানাজা শেষে নবীনগর কবরস্থানে তাকে দাফন করা হয়।
তিনি নাটোরের লালপুর উপজেলার বুধপাড়া গ্রামের মরহুম মতিউর রহমান পিন্টুর ছেলে।
জানা যায়, বৃহস্পতিবার 
রাজশাহী শহরের একটি ছাত্রাবাসে সিলিং ফ্যানের সাথে গলায় কাপড় পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করেন। সন্ধ্যা ৬টার দিকে ওই মেসে হতে তার লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। 
তাঁর বাবা সৌদি প্রবাসী পিন্টু ২০২১ সালের ১২ জুলাই রাজধানী রিয়াদের একটি বাসায় রহস্যজনকভাবে মারা যান। 
স্থানীয় ও পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, সম্প্রতি প্রেমঘটিত কারণে মাসুক কীটনাশক খেয়ে অসুস্থ হলে তাঁকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। কিছুটা সুস্থ হলে পরিবারের লোকজন তাকে বাড়িতে নিতে চাইলে আগামী রোববার বাড়িতে আসার কথা জানান। গত বৃহস্পতিবার তার মা ও পরিবারের সদস্যদের রাজশাহী রেল স্টেশনে ট্রেনে উঠিয়ে দিয়ে মেসে এসে রুমের দরজা আটকে দেন। সন্ধ্যা হলেও সে রুম থেকে বের না হলে মেসের অন্য ছাত্ররা খুঁজতে গিয়ে তাঁর কক্ষে ঝুলন্ত অবস্থায় দেখতে পেয়ে পুলিশে খবর দেয়। লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্ত শেষে শুক্রবার গ্রামের বাড়ি বুধপাড়ায় নিয়ে আসলে এক নজর দেখতে মানুষের ঢল নামে। 

সাম্প্রতিক মন্তব্য

Top