logo
news image

চিরবিদায় নিলেন অধ্যক্ষ আকরাম হোসেন

 
নিজস্ব প্রতিবেদক  :

নাটোরের লালপুর উপজেলার গোপালপুর অনার্স কলেজের অধ্যক্ষ মো. আকরাম হোসেন আর নেই। চির বিদায় নিলেন প্রিয় ক্যাম্পাস, সহকর্মী ও বন্ধু বান্ধব সহ স্বজনদের শ্রদ্ধা আর ভালবাসায়।

লালপুর উপজেলার গোপালপুর ডিগ্রী পাস অনার্স কলেজের অধ্যক্ষ মো. আকরাম হোসেন শনিবার (১৮ জুন) হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে অসুস্থ হয়ে পড়লে তাঁকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হয়। চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি রবিবার (১৯ জুন) সকাল সাড়ে ৮টার দিকে মৃত্যুবরণ করেন। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল ৫৪ বছর। তিনি স্ত্রী, সন্তানসহ অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে গেছেন। 

মো. আকরাম হোসেন নাটোরের  বাগাতিপাড়া উপজেলার খাটখৈইর গ্রামে ১৯৬৮ সালের ৩০ জুন জন্মগ্রহণ করেন। পিতা মরহুম কাচু মন্ডল ও মাতা মরহুম জহুরা বেগম। স্ত্রী মোছা. মাহফুজা পারভিন। তাঁদের সন্তান মাঈন মাশরুর ও মাহী মাশরুর।

তিনি বাগাতিপাড়ার চিথলিয়া প্রাথমিক বিদ্যালয় থেকে পঞ্চম শ্রেণি, লোকমানপুর উচ্চ বিদ্যালয় থেকে এসএসসি, আব্দুলপুর কলেজ থেকে এইচএসসি, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ইংরেজি সাহিত্যে স্নাতক (সম্মান) ও ১৯৮৯ সালে স্নাতকোত্তর ডিগ্রি অর্জন করেন।
তিনি ১৯৯৩ সালে বাঁশেরবাদা কলেজে প্রভাষক হিসেবে যোগদান করেন। এরপর ১৯৯৩ সালে গোপালপুর কলেজে প্রভাষক হিসেবে যোগদান করেন। উপাধ্যক্ষ হিসেবে ২০১১ সালে দায়িত্ব পান। পরবর্তীতে ২০১৪ সাল থেকে তিনি অধ্যক্ষ হিসেবে কর্মরত ছিলেন। তিনি লালপুর উপজেলা কলেজ শিক্ষক-কর্মচারী সমিতির সভাপতির দায়িত্ব পালন করছিলেন।

মরহুমের প্রথম জানাজা রবিবার বিকেল ৪টায় গোপালপুর ডিগ্রী পাস ও অনার্স কলেজ মাঠ প্রাঙ্গনে অনুষ্ঠিত হয়। 
জানাজায় অংশ গ্রহণ করেন, 
নাটোর১ (লালপুর বাগাতিপাড়া) আসনের সংসদ সদস্য শহিদুল  ইসলাম বকুল, সাবেক সংসদ সদস্য এ্যাড: আবুল কালাম আজাদ, লেফটেন্যান্ট কর্নেল (অবসরপ্রাপ্ত) রমজান আলী সরকার, লালপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আফতাব হোসেন ঝুলফু, সাধারণ সম্পাদক ও উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ইসহাক আলী, সাবেক  মেয়র মুনজুরুল ইসলাম বিমল, আখচাষী নেতা আনসার আলী দুলাল, অধ্যক্ষ ইব্রাহিম খলিল প্রমুখ।
এছাড়াও অত্র  কলেজের শিক্ষক কর্মচারী, বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের  শিক্ষক, বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ, স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তি সহ সর্বস্তরের জনসাধারণ উপস্থিত ছিলেন। 

বিকেল সাড়ে ৫টায় বাগাতিপাড়া নিজ গ্রামের খাঁটখৈইর স্কুল মাঠে দ্বিতীয় জানাজা শেষে স্থানীয় কবরস্থানে তাঁর দাফন সম্পন্ন হয়। 

তাঁর মৃত্যুতে অত্র কলেজের  গভর্নিং বডির সভাপতি ও লালপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার শামিমা সুলতানা, গোপালপুর পৌর মেয়র রোকসানা মোর্তুজা লিলি সহ বিভিন্ন সামাজিক, রাজনৈতিক, সাংস্কৃতিক, পেশাজীবি সংগঠনের পক্ষ থেকে গভীর শোক ও শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানানো হয়েছে।


সাম্প্রতিক মন্তব্য

Top