logo
news image

অসাধারণ ক্ষিপ্রতায় মোস্তাফিজের

প্রথম ম্যাচে বল হাতে তেমন উজ্জ্বল ছিলেন না মোস্তাফিজুর রহমান। চেন্নাই সুপার কিংসের বিপক্ষে মুম্বই ইন্ডিয়ান্সের এ বাংলাদেশি পেসার ৩৯ রানে নেন এক উইকেট।  তবে নিজের পুরনো দল সানরাইজার্স হায়দরাবাদের বিপক্ষে দেখা গেল অন্য মোস্তাফিজকে। বল হাতে দুর্দান্ত নৈপুণ্যে দলকে প্রায় অসম্ভব এক জয়ের দ্বারপ্রান্তে নিয়ে গিয়েছিলেন বাংলাদেশি এ কাটার মাস্টার। বৃহস্পতিবার ঘরোয়া টি-টোয়েন্টি আসর ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লীগে (আইপিএল) টস হেরে আগে ব্যাটিংয়ে ১৪৭/৮ সংগ্রহ নিয়ে শেষ হয় মুম্বই ইন্ডিয়ান্সের ইনিংস। জবাবে ওপেনিং জুটিতে ৬.৪ ওভারে সানরাইজার্সের স্কোর বোর্ডে জমা পড়ে ৬২ রান। পরের ৪৫ রানে পাঁচ উইকেট খোয়ালেও ম্যাচটা সানরাইজার্সের হাতের মুঠোয়ই ছিল।


১৮ বলে সানরাইজার্সের প্রয়োজন ছিল মাত্র ১৫ রানের। ১৮তম ওভারে বল হাতে ৩ রান দিয়ে জোড়া উইকেট তুলে নেন মুম্বইয়ের ভারতীয় পেসার জসপ্রিত বুমরাহ। তবে তিন উইকেট অবশিষ্ট রেখে ১২ বলে ১২ রানের লক্ষ্যটা তখনও হায়দরাবাদের হাতের নাগালেই। ১৯তম ওভারে মোস্তাফিজুর রহমানের হাতে বল তুলে দিলেন মুম্বই ইন্ডিয়ান্স অধিনায়ক রোহিত শর্মা। 
মোস্তাফিজের প্রথম বলে ১ রানে প্রান্ত বদল করলেন  দীপক হুডা। ব্যাস, পরের টানা পাঁচটি ছিল ডটবল। এর মধ্যে মোস্তাফিজ তুলে নেন জোড়া উইকেট। সানরাইজার্স ব্যাটসম্যান সিদ্ধার্থ কাউলকে নিজের হাতেই রিটার্ন ক্যাচ বানান মোস্তাফিজ। অসাধারণ ক্ষিপ্রতায় এক হাতে ক্যাচ নেন তিনি। আর ওভারের শেষ বলে সন্দীপ শর্মাকে সাজঘরে ফেরান মোস্তাফিজ। এতে শেষ ওভারে সানরাইজার্সের প্রয়োজন হয় ১১ রানের। অজি পেসার বেন কাটিংয়ের ওভারের শেষ বলে চার হাঁকিয়ে সানরাইজার্সকে ১ উইকেটের রুদ্ধশ্বাস জয় এনে দেন সানরাইজার্সের অজি তারকা বিলি স্ট্যানলেক। ম্যাচে নিজের ৪ ওভারের স্পেল শেষে মোস্তাফিজের বোলিং ফিগার দাঁড়ায় ৩/২৪-এ। ম্যাচে নিজের প্রথম ওভারে মোস্তাফিজ সাজঘরে ফেরান হায়দরাবাদের অধিনায়ক কিউই ব্যাটসম্যান কেন উইলিয়ামসনকে। ম্যাচ শেষে মোস্তাফিজদের প্রশংসায় ভাসান মুম্বই ইন্ডিয়ানস অধিনায়ক রোহিত শর্মাও। বলেন, ‘সত্যিই অসাধারণ একটি ম্যাচ ছিল। আমরা উপভোগ করেছি। আসলে আমাদের ব্যাটসম্যানরা ভালো করতে পারেনি। লড়াইয়ের জন্য রানটা যথেষ্ট ছিল না। কিন্তু বোলাররা অসাধারণ বোলিং করেছে। এদিন মুম্বইয়ের ব্যাট হাতে সর্বোচ্চ ২৯ রান করেন ক্যারিবীয় ওপেনার এভিন লুইস। অপর ক্যারিবীয় তারকা কাইরন পোলার্ড করেন ২৮ রান। ৪ ওভারের স্পেলে ৩৪ রানে এক উইকেট নেন সানরাইজার্স হায়দরাবাদের বংলাদেশি বাঁ-হাতি স্পিনার সাকিব আল হাসান। আর বল হাতে রেকর্ডগড়া নৈপুণ্য দেখান রশিদ খান। আইপিএলের এক ম্যাচে স্পিনারদের মধ্যে সর্বাধিক ডটবলের রেকর্ড স্পর্শ করলেন হায়দরাবাদের এ আফগান লেগস্পিনার। আইপিএলে এক ম্যাচে ১৮ ডটবলের কীর্তি রয়েছে কেবল ভারতীয় দুই স্পিনার রবিচন্দ্রন অশ্বিন ও অমিত মিশ্রর। বৃহস্পতিবার ৪ ওভারের স্পেলে ১৩ রানে এক উইকেট নেন রশিদ খান। এবারের আইপিএলে দুই ম্যাচে মোস্তাফিজুর রহমানের শিকার ৪ উইকেট। 

কমেন্ট করুন

...

সাম্প্রতিক মন্তব্য

Top