logo
news image

ঈশ্বরদীতে ইরি-এগ্রি প্রকল্পের আমন ধান কর্তন

নিজস্ব প্রতিবেদক।।
আন্তর্জাতিক ধান গবেষণা ইন্সটিটিউট (ই.রি) এর তত্বাবধানে নাটোরের লালপুর উপজেলার পাশ্ববর্তী ঈশ্বরদী উপজেলার মোকরামপুর গ্রামে আমন ধানের নমুনা শস্য কর্তন-২০২১ অনুষ্ঠিত হয়েছে।
বৃহস্পতিবার (২৫ নভেম্বর) সকালে বিল্ড এন্ড মেলিন্ডা গেটস ফাউন্ডেশনের অর্থায়নে আভা ডেভেলপমেন্ট সোসাইটির সহযোগিতায় উপজেলার মোকারামপুর গ্রামের আজিজ আলী ছেলে কৃষক মিলন এর জমিতে শস্য কর্তন করা হয়। এই প্রদর্শনী প্লটে ৬ প্রকার (ব্রি ধান ৮০, ব্রি ধান ৮৭, ব্রি ধান ৯৩, ব্রি ধান ৯৪, ব্রি ধান ৯৫ ও স্বর্ণা) চাষ করা হয়। কৃষক মিলন জানান ব্রি ধান ৮০, ব্রি ধান ৮৭, ব্রি ধান ৯৩, ব্রি ধান ৯৪, ব্রি ধান ৯৫ এই পাঁচ জাতের ধানের ফলন ভালো হওয়ায় গ্রামের অন্যান্য কৃষকরা আগামী বছর এই উচ্চ ফলনশীল জাতের ধান চাষে আগ্রহ প্রকাশ করেছে। তবে ব্রি ধান ৯৩, ব্রি ধান ৯৪, ব্রি ধান ৯৫ ফলন তুলনা মূলক বেশি হয়েছে। ধানের রং দেখতে সুন্দর। ২টি জাতের জমির ধান ৫০ বর্গ মিটার করে উপস্থিত সকল কৃষক ও অতিথিদের সামনে কেটে মাড়াই করে ব্রি ধান ৯৫ হেক্টর প্রতি ফলন পাওয়া যায় ৫.২৯ টন এবং ব্রি ধান ৮৭ ফলন পাওয়া যায় ৪.৪৯ টন।
এসময় উপস্থিত ছিলেন ঈশ্বরদী উপজেলার কৃষি উপসহকারি আলিউজ্জামান, আব্দুল আলিম, কৃষক আজমল আলী, সাইফুল ইসলাম, রাহাত আলী, মুরাদ, রবু, খোকন আলী ও নফিল হোসেন প্রমুখ।
এ ব্যাপারে কৃষি উপসহকারি আলিউজ্জামান বলেন আমাদের এই এলাকায় ব্রি ধান ৮০, ব্রি ধান ৮৭,  ব্রি ধান ৯৩, ব্রি ধান ৯৪, ব্রি ধান ৯৫ ফলন তুলনা মূলক বেশি হয়েছে। তিনি আরো বলেন অধিক ফলন পাওয়ার জন্য ইফশি জাতের এই ধানগুলো আপনারা চাষ করবেন।
আন্তর্জাতিক ধান গবেষণা ইনস্টিটিউট (ইরি) এই এলাকার জন্য উপযোগি আধুনিক উচ্চ ফলনশীল (উফসি) জাতের ধান কৃষকের চাহিদা অনুযায়ী নির্বাচনের জন্য উপরোক্ত ৬টি জাত দ্বারা অত্র প্রকল্পের মাধ্যমে কৃষকের জমিতে হেড টু হেড প্রদর্শনী স্থাপন করেন।

সাম্প্রতিক মন্তব্য

Top