logo
news image

লালপুরে ভারতীয় সহকারী হাই কমিশনার মি. সঞ্জীব কুমার ভাটি

নিজস্ব প্রতিবেদক।।
নাটোরের লালপুরে ঐতিহ্যবাহী কালী মাতা মন্দিরে ৫৩১তম পূজা উৎসবে এসে পূজা অর্চনা, মন্দির পরিদর্শন শেষে আলোচনা সভায় অংশগ্রহণ করেন ভারতীয় সহকারী হাই কমিশনার মি. সঞ্জীব কুমার ভাটি।
আলোচনা সভায় ভারতীয় সহকারী হাই কমিশনার মি. সঞ্জীব কুমার ভাটিকে লালপুরে ঐতিহ্যবাহী কালী মাতা মন্দিরসহ বিভিন্ন সংগঠনের পক্ষ থেকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানানো হয়। তাঁর হাতে লালপুরের ঐতিহ্য কাঁসা শিল্পের একটি নকশা খচিত কাঁসা’র থালা উপহার হিসেবে তুলে দেওয়া হয়।
মঙ্গলবার (১৭ নভেম্বর) নাটোরের লালপুরে ঐতিহ্যবাহী কালী মাতা মন্দির কমিটির সভাপতি মুকুল কুমার সাহা সভাপতিত্বে ও রাজশাহী বেতারের উপস্থাপক আব্দুর রোকন মাসুমের উপস্থাপনায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন, ভারতীয় সহকারী হাই কমিশনার (রাজশাহী) মি. সঞ্জীব কুমার ভাটি, হিন্দু ধর্মীয় কল্যাণ টাস্টের মাননীয় ট্রাস্টি শ্রী তপন কুমার সেন, নাটোর-১ (লালপুর-বাগাতিপাড়া) আসনের সাবেক সংসদ সদস্য এ্যাড আবুল কালাম আজাদ, লালপুর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ইসাহাক আলী, নাটোর পৌর সভার মেয়র উমা চৌধুরী জলি, হিন্দু বৌদ্ধ খৃষ্টান ঐক্য পরিষদ নাটোর শাখার সভাপতি চিত্ত রঞ্জন সাহা, লালপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আফতাব হোসেন ঝুলফু ।
এ সময় উপস্থিত ছিলেন লালপুর ইউপি চেয়ারম্যান আবু বকর সিদ্দিক পলাশ, লালপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আলাল উদ্দিন আলাল, জেলা তাঁতী লীগের যুগ্ম সাধারণ তৌহিদুল ইসলাম বাঘা, হিন্দু বৌদ্ধ খৃষ্টান ঐক্য পরিষদ লালপুর শাখার সভাপতি স্বপন কুমার ভদ্র, কালী মন্দির কমিটির সাধারণ সম্পাদক আনন্দ মোহন সাহাসহ কমিটির সদস্য ও দর্শনার্থী বৃন্দ।
মি. সঞ্জীব কুমার ভাটি মঞ্চে বসে হঠাৎ হাতের ইশারায় একটি শিশুকে ডেকে নেন। তখন উপস্থিত সকলের দৃষ্টি শিশুটির দিকে। শিশুটি অবাক দৃষ্টিতে এদিক সেদিক তাকাচ্ছে। এরপর শিশুটি মঞ্চে পৌঁছতেই তার হাতে তুলে দেন ফুলের তোড়া। এরপর আরো একজন শিশুকে একইভাবে ডেকে তার হাতেও ফুলের তোড়া তুলে দেন। এমন ভালবাসায় উপস্থিত সকলেই মুগ্ধ করেন তিনি।
লালপুরে ঐতিহ্যবাহী কালী মাতা মন্দিরে ৫৩১ তম পূজা ১৪ নভেম্বর মধ্য রাতে শুরু হয়ে ২০ নভেম্বর শুক্রবার প্রতিমা বিসর্জনের মধ্য দিয়ে সম্পন্ন হবে।

সাম্প্রতিক মন্তব্য

Top