logo
news image

ঈশ্বরদীর আখক্ষেত হতে স্কুল শিক্ষার্থির লাশ উদ্ধার

ঈশ্বরদী (পাবনা) সংবাদদাতাঃ
ঈশ্বরদীর মুলাডুলি ইউনিয়নে সোমবার সন্ধ্যায় একটি আখ ক্ষেত হতে পঁচাগলা অবস্থায় এক স্কুল শিক্ষার্থির লাশ উদ্ধার হয়েছে। উদ্ধারকৃত এই কিশোরের নাম আসিক (১৬)। সে পাবনা সদর থানার নবম শ্রেণীর ছাত্র। পাবনা সদরের গাছপাড়া খাঁ পাড়া এলাকার অটোচালক আবুল কাশেমের পুত্র বলে জানা গেছে। গত ২৪ শে জুলাই হতে সে নিখোঁজ ছিল। এব্যাপারে পাবনা সদর থানায় পরিবারের পক্ষ হতে জিডি করা হয়। অটো রিকশা ছিনতাইয়ের উদ্দেশ্যেই তাকে হত্যা করা হয়েছে বলে পুলিশ ও এলকাবাসীরা ধারণা করছে।
স্কুল শিক্ষার্থির লাশ উদ্ধারের ঘটনা ঈশ্বরদী থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) সেখ নাসীর উদ্দিন নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, সোমবার আছরের পর এলাকার জনৈক ব্যক্তি আখক্ষেতে ঘাস কাটতে গেলে পচাঁ গন্ধ পেয়ে ভেতরে প্রবেশ করে লাশটি দেখতে পায়। পরে সে গ্রামপুলিশকে ঘটনা জানালে থানায় খবর দেয়া হয়। ঈশ্বরদী থানা পুলিশ সন্ধ্যা ছয়টার দিকে মুলাডুলি ইউনিয়নের নিকরহাটা প্যারিস রোডের পাশের আখ ক্ষেত হতে লাশ উদ্ধার করে থানায় নিযে আসে। ওসি আরো জানান, আশেপাশের এলাকায় কেউ নিখোঁজ কিনা খোঁজ করতে গিয়ে পাবনা সদর থানায় ২৪ জুলাই নিখোঁজের বিষয়টি সামনে আসে। নিহত আসিকের পরিবার এসে লাশ সনাক্ত করে। লকডাউনের কারণে স্কুল ছাত্র আসিক মাঝে মাঝে বাবার অটোরিকশা চালাতো। ওইদিন অটোরিকশা নিয়ে সে বাড়ি হতে বের হয়। কিন্তু দীর্ঘ সময় সে বাড়িতে ফিরে না এলে পরিবারের পক্ষ হতে সদর থানায় জিডি করা হয়। ঘাতকরা অটো রিকশার জন্য আসিককে খুন করেছে বলে পুলিশ প্রাথমিক ভাবে ধারণা করছে। আসিকের ডান হাত কনুই হতে কাটা এবং পেটের ভুড়ি বের হওয়া অবস্থায় পাওয়া গেছে। ঘাতকরা অটোরিকশা ছিনতাইয়ের জন্য নৃশংসভাবে তাকে হত্যা করেছে বলে ওসি জানিয়েছেন।

সাম্প্রতিক মন্তব্য