logo
news image

ঈশ্বরদীতে মার্কেট বন্ধের নিষেধাজ্ঞার প্রতিবাদে বিক্ষোভ পুলিশের লাঠিচার্জের অভিযোগ

ঈশ্বরদী (পাবনা) সংবাদদাতাঃ
দোকান বন্ধের পাবনা জেলা ও ঈশ্বরদী উপজেলা প্রশাসনের  নিষেধাজ্ঞা তুলে নিয়ে সকল দোকান খুলে দেওয়ার দাবিতে বিােভ মিছিল করেছে ঈশ্বরদী বাজারের ব্যবসায়ীরা। মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ১০ টায় ব্যবসায়ী এবং দোকানের কর্মচারীরা এই বিােভ মিছিলে অংশ নেয়। প্রশাসনের নিষেধাজ্ঞার বিরুদ্ধে বাজারের ১ নম্বর গেটে বিােভ মিছিল শুরু করলে পুলিশ ধাওয়া দিয়ে মিছিল ছত্রভঙ্গ করে দেয়।
বঙ্গবন্ধু সুপার মার্কেটের ব্যবসায়ী আরিফুল হক জানায়, করোনা মহামারিতে দীর্ঘ দেড় মাস বন্ধ থাকার পর গত ১০ মে থেকে সরকার মার্কেট ও দোকান খোলার অনুমতি দেয়। সেই অনুযায়ী ঈশ্বরদী বাজারের ব্যবসায়ীরা দোকান খোলা রেখে ব্যবসা পরিচালনা করে আসছিল। কিন্তু সোমবার বিকেলে হঠাৎ করেই পাবনা জেলা ঈশ্বরদী উপজেলা প্রশাসন স্বাস্থ্যবিধি না মানার কথা বলে মঙ্গলবার থেকে ঈশ্বরদীসহ পাবনা জেলার সব মার্কেট ও দোকান বন্ধ রাখার নির্দেশ দেয়। তিনি আরো জানান, ঈদের আগে দোকান বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত পুনঃবিবেচনার দাবীতে ব্যবসায়ীরা একত্রিত হয়ে সকালে বিােভ মিছিল শুরু করে। এ সময় পুলিশ এসে লাঠিচার্জ করে মিছিলটি ছত্রভঙ্গ করে দেয়। লাঠিচার্জে বাজারের একজন কাপড় ব্যবসায়ী ও একটি গার্মেন্টসের দোকানের  কর্মচারীসহ ১০/১২ জন সামান্য আঘাত প্রাপ্ত হয়েছেন বলে তিনি দাবী করেন।
 এঘটনার পর বাজারের মুদি খানা ও ঔষধের দোকান বাদে সকল দোকানপাট বন্ধ করে দেয়। পরে বাজার এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হলে মুদি খানা ও ঔষধের দোকান খোলা হয়।
ঈশ্বরদী থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) লাঠিচার্জের বিষয়টি অস্বীকার করে বলেন, বিশৃংখলা এড়াতে পুলিশ লাঠি নিয়ে তাড়া করেছে মাত্র।
ঈশ্বরদী শিল্প ও বণিক সমিতির সভাপতির শফিকুল ইসলাম বাচ্চুর সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, ব্যবসায়ীদের দাবিতে প্রেেিত  নিয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার শিহাব রায়হানের  সাথে দেখা করে তাঁকে বিষয়টি তাকে জানিয়েছি। তিনি গুরুত্ব সহকারে ব্যবসায়ীদের কথা শুনেছেন। বিষয়টি পাবনা জেলা প্রশাসককে অবহিত করবেন বলে তিনি আমাদের আশ্বস্থ করেছেন।

সাম্প্রতিক মন্তব্য