logo
news image

বড়াইগ্রামে একই গ্রামে বিষ পানে দুই জনের মৃত্যু

নিজস্ব প্রতিবেদক বড়াইগ্রামে নাটোর
নাটোরের বড়াইগ্রামে বিষ প্রানে একই গ্রামে রত্মা খাতুন (২০) মনোয়ারা বেগম (৪৫) দুই নারীর মৃত্যু হয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার উপজেলার তিরাইল পশ্চিমপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। মারা যাওয়া মনোয়ারা বেগম তিরাইগ্রামে মজনু মৃধার স্ত্রী, রত্মা খাতুন একই গ্রামের সায়েদ মোল্লার ও নাটোর নবাব সিরাজউদ্দৌলা কলেজের প্রথম বর্ষের বর্ষের ছাত্রী।
রিতার পারিবারিক সুত্রে জানাযায়, সোমবার রাত রাত্রী ৯টার দিকে দিকে মায়ের সাথে কথা কাটাকাটির হয় রত্মা খাতুনের। পরে সবার অগোচরে বিষ পান করলে বনপাড়ার একটি ক্লিনিকে নিয়ে গেলে রাত আনুমানিক ১২ টার দিকে কর্তব্যরত চিকিৎষক তাকে মৃত ঘোষনা করেন।
মনোয়ারা বেগমের পারিবারিক সুত্রে জানাযায়, প্ররিশ্রমিক মানুষ ছিলেন মনোয়ারা বেগম। মজনু মৃধার সাথে প্রায় ২৫ বছর আগে জোয়ারী গ্রামে আবুল কাশেমের মেয়ে মনোয়ারা বেগমের বিয়ে হয় । জন্ম নেয় দুইটি ছেলে ১ টি মেয়ে। বড় ছেলে মেরিন ইঞ্জিনিয়ারী শেষ করে বাড়িতে আসছে। মেয়ে তিরাইল উচ্চ বিদ্যালয়ের ৯ম শ্রেনীর ছাত্রী ছোট ছেলে স্থানীয় একটি কিন্ডার গার্ডেনের নার্সারীতে পরে। তিন সন্তানকে লেখাপড়া করাতে গিয়ে অভাব অনটনে প্রায়ই কলহ লাগত পরিবারে। এ কারনেই গত শনিবার সকালে কথা কাটাকাটির সময় লাঠি দিয়ে মারপিট করে মজনু মৃধা। পরে বাড়িতে থাকা বিষঁ খেয়ে আত্তহ্যার চেষ্ঠা করে। তাকে উদ্বার করে প্রথমে একটি বেসরকারী হাসপাতালে পরে অবস্থার অবনতী হলে রাজশাহী মেডিকেলে হাসপাতালে চিকিৎষাধীন অবসতায় তার মৃত্যু হয়।
বড়াইগ্রাম থানার পুলিশ পরিদর্শক দিলিপ কুমার দাস বলেন, রত্মা খাতুনের লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য নাটোর সদর হাসপাদতালে পাঠানো হয়েছে।

সাম্প্রতিক মন্তব্য

Top