logo
news image

ম্যাচসেরার পুরস্কার জেতেন আফ্রিদি

পাকিস্তান প্রিমিয়ার লীগে (পিসএএল) নিজের তৃতীয় ম্যাচেও বল হাতে দুর্দান্ত ছিলেন কাটার  মাস্টার মোস্তাফিজুর রহমান। এ ম্যাচে তার দল লাহোর কালান্দার্সের অন্য বোলাররাও বল হাতে ছিলেন সফল। কিন্তু ব্যাটসম্যানদের ব্যর্থতায় তার দল লাহোর ২৭ রানে হার দেখে করাচি কিংসের কাছে। এ নিয়ে চলতি আসরে তিন ম্যাচের সবকটিতেই হারের স্বাদ পেলো তারা। অন্যদিকে আসরে টানা তৃতীয় জয় পেলো করাচি। সোমবার দুবাই আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে টস জিতে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেন করাসি কিংসের অধিনায়ক ইমাদ ওয়াসিম।প্রথমে ব্যাটিংয়ে নেমে নির্ধারিত ওভারে ৭ উইকেটে ১৯৫ রান সংগ্রহ করে করাচি কিংস। জবাবে শহিদ আফ্রিদি ও ওসমান খানের বোলিং তোপে ৯ বল বাকি থাকতে ওভারে ১৩২ রানে অল আউট লাহোর। এদিন ইনংসের চতুর্থ ওভারে দলীয় ৩৬ রানে ওপেনার জো ডেনলির উইকেট হারায় করাচি কিংস। এর পরের ওভারেই মোস্তাফিজকে বোলিংয়ে আনেন অধিনায়ক ব্রেন্ডন ম্যাককালাম। ওভারের প্রথম বলেই তিনি তুলে নেন নতুন ব্যাটসম্যান বাবর আজমের উইকেট। পরে এ ওভারে কোন রানও দেননি এ টাইগার তরুণ তুর্কি। শেষ পর্যন্ত রবি বোপারার অপরাজিত ৫০ রানের সুবাদে ১৯৫ রানের লড়াকু সংগ্রহ গড়ে করাচি। ৩৪ বলে ২ ছক্কা ২ চারে এ রান করেন বোপারা। লাহোরের হয়ে ৪ ওভারে ২২ রান খরচায় ১ উইকেট নেন মোস্তাফিজ। দু’টি করে উইকেট নেন পেসার সোহেল খান এবং দুই স্পিনার সুনিল নারাইন ও ইয়াসির শাহ। ১৬০ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে দলীয় ১ রানেই প্রথম উইকেট হারায় লাহোর। দ্বিতীয় উইকেটে ৬.২ ওভারে ম্যাককালাম ও ফখর জামানের ৬৯ রানের জুটি জয়ের আশা দেখাচ্ছিল তাদের। এরপরই আফ্রিদি ও উসমানের তোপে ৯১ রানে ৫ উইকেট হারায় লাহোর। পরে নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারিয়ে শেষ পর্যন্ত ১৩২ রানে অলআউট হয় তারা। দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ৪৪ রান করেন অধিনায়ক ম্যাককালাম। করাচির হয়ে বল হাতে আফ্রিদি ১৯ রানে ৩টি ও উসমান খান ২৬ রানে ৩ ইউকেট শিকার করেন। ম্যাচসেরার পুরস্কার জেতেন আফ্রিদি।

কমেন্ট করুন

...

সাম্প্রতিক মন্তব্য

Top