logo
news image

শুভ জন্মাষ্টমী

নিজস্ব প্রতিবেদক।।
শুক্রবার (২৩ আগস্ট) শুভ জন্মাষ্টমী। সনাতন হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের আরাধ্য ভগবান শ্রীকৃষ্ণের জন্মতিথি। ধর্মীয় ভাবগাম্ভীর্য ও আনন্দ উৎসবের মধ্য দিয়ে এই দিনটি উদযাপিত হবে। এ উপলক্ষে বিভিন্ন সামাজিক সাংস্কৃতিক ও ধর্মীয় সংগঠন বিস্তারিত কর্মসূচি গ্রহণ করেছে। প্রতি বছরের ন্যায় এবারো রাজধানীতে বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা, আলোচনা ও পূজাসহ নানান কর্মসূচি নেওয়া হয়েছে।
হিন্দু ধর্মীয় গ্রন্থ পুরান মতে, ভাদ্র মাসের শুক্লপক্ষের অষ্টম তিথিতে ভগবান শ্রী কৃষ্ণ জন্মগ্রহণ করেন। হিন্দু ধর্মালম্বীদের বিশ্বাস পাশবিক শক্তি যখন ন্যায়নীতি, সত্য ও সুন্দরকে গ্রাস করতে উদ্যত হয়েছিল, তখন সেই শক্তিকে দমন করে মানবজাতির কল্যাণ এবং ন্যায়নীতি প্রতিষ্ঠার জন্য মহাবতার ভগবান শ্রীকৃষ্ণের আবির্ভাব ঘটেছিল। দুষ্টের দমন করতে এভাবেই যুগে যুগে ভগবান মানুষের মাঝে নেমে আসেন এবং সত্য ও সুন্দরকে প্রতিষ্ঠা করেন বলে হিন্দু ধর্মাবলম্বীরা বিশ্বাস করেন।
শুভ জন্মাষ্টমী উপলক্ষে রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ শুক্রবার বেলা ১১টা থেকে ১২টা পর্যন্ত বঙ্গভবনে হিন্দু সম্প্রদায়ের বিশিষ্ট নাগরিকদের সাথে শুভেচ্ছা বিনিময় করবেন। এ ছাড়া রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পৃথক বাণীতে হিন্দু সম্প্রদায়ের প্রতি জন্মাষ্টমীর শুভেচ্ছা জানিয়েছেন। রাষ্ট্রপতি তার বাণীতে বিদ্যমান সম্প্রীতি ও মৈত্রীর বন্ধনকে আরো সুদৃঢ় করে তা জাতীয় অগ্রগতি ও সমৃদ্ধি অর্জনের কাজে লাগাতে দেশের সকল ধর্মাবলম্বীদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন।
‘জন্মাষ্টমী’ উপলক্ষে সনাতন ধর্মাবলম্বীদের শুভেচ্ছা জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তার বাণীতে বলেছেন, বাংলাদেশ সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির দেশ। আওয়ামী লীগ সরকার দেশে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি রক্ষা করতে বদ্ধপরিকর। তিনি বলেন, ‘মানুষে-মানুষে ভ্রাতৃত্ব স্থাপন এবং সমাজে সাম্য প্রতিষ্ঠাই ছিল শ্রীকৃষ্ণের একমাত্র লক্ষ্য। তিনি (শ্রীকৃষ্ণ) আজীবন শান্তি, মানবপ্রেম ও ন্যায়ের পতাকা সমুন্নত রেখেছেন।
সংশ্লিষ্টরা জানান, শুভ জন্মাষ্টমী উপলক্ষে বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদ ও মহানগর সার্বজনীন পূজা কমিটি ঢাকেশ্বরী জাতীয় মন্দিরে কেন্দ্রীয়ভাবে দুদিনব্যাপী কর্মসূচি গ্রহণ করেছে। কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে- শুক্রবার সকাল ৮টায় দেশ ও জাতির মঙ্গল কামনায় গীতাযজ্ঞ। বিকেল ৩টায় জন্মাষ্টমী শোভাযাত্রা অংশগহণ। এই শোভাযাত্রার উদ্বোধন করবেন ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের মেয়র সাঈদ খোকন।
অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি থাকবেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। বিশেষ অতিথি থাকবেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল।
আয়োজকরা জানান, ঢাকেশ্বরী জাতীয় মন্দির থেকে ওই শোভাযাত্রাটি শুরু হয়ে পলাশী বাজার-জগন্নাথ হল-কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার-দোয়েল চত্বর-হাইকোট-জাতীয় প্রেস ক্লাব-পল্টন-শহীদ নূর হোসেন স্কয়ার- গোলাপ শাহ মাজার-গুলিস্থান মোড়-নবাবপুর রোড-রায় সাহেব বাজার ঘুরে বাহাদুর শাহ পার্কে গিয়ে শেষ হবে। এ ছাড়া জন্মাষ্টমী উপলক্ষে আগামী পহেলা সেপ্টেম্বর ঢাকেশ্বরী জাতীয় মন্দিরে আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়েছে। ওইদিন বিকেল তিনটায় অনুষ্ঠিতব্য আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল।
এদিকে মহানবতার ভগবান শ্রীকৃষ্ণের শুভ জন্মদিন জন্মাষ্টমী উপলক্ষে বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি মিলন কান্তি দত্ত ও সাধারণ সম্পাদক নির্মল চ্যাটার্জী এবং মহানগর সার্বজনীন পূজা কমিটির সভাপতি শৈলেন্দ্র নাথ মজুমদার ও সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট কিশোর রঞ্জন মন্ডল এক বিবৃতিতে- জাতি ধর্ম-বর্ণ নির্বিশেষে সকল মানুষকে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন।

সাম্প্রতিক মন্তব্য

Top