logo
news image

বাল্যবিয়ে মাদক ও উত্যক্তের খবর দিলেই পুরস্কার

নিজস্ব প্রতিবেদক, গুরুদাসপুর।।
বাল্যবিয়ে, মাদকসেবী-বিক্রেতা ও উত্যক্তকারীর খবর দিলেই পুরষ্কৃত করা হবে, এটি একটি ব্যতিক্রমী উদ্যোগ। বলেছেন দরিদ্র সংস্থার উপদেষ্টা আলহাজ্ব অধ্যাপক আব্দুল কুদ্দুস এমপি।
বৃহস্পতিবার (২২ আগস্ট) দুপুরে গুরুদাসপুর উপজেলা চত্বরে এ সংক্রান্ত একটি বিলবোর্ড টাঙ্গিয়ে ও লিফলেট বিতরণ করে তিনি এই কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন, গুরুদাসপুর উপজেলা চেয়ারম্যান মোঃ আনোয়ার হোসেন, উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো.তমাল হোসেন, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান আলাল শেখ,মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান রোকসানা আকতার, বিয়াঘাট ইউপি চেয়ারম্যান প্রভাষক মোজাম্মেল হক, চাপিলা ইউপি চেয়ারম্যান আলাল উদ্দিন ভুট্টু, দরিদ্র সংস্থার সাধারণ সম্পাদক নাজমুল হাসান নাহিদ, যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক মেহেদী হাসান তানিমসহ প্রমুখ।
সংস্থার উপদেষ্টা স্থানীয় সাংসদ আলহাজ্ব অধ্যাপক মোঃ আব্দুল কুদ্দুস বলেন, এটি একটি ব্যতিক্রমী উদ্যোগ। আমি এই উদ্যোগ কে স্বাগত জানাই।
দরিদ্র সংস্থার প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি প্রভাষক মোঃ মাজেম আলী ও সাধারণ সম্পাদক নাজমুল হাসান নাহিদ জানান, পুরস্কার একটি প্রচলিত শব্দ। পুরস্কারের এই রেওয়াজ চলে আসছে আদি আমল থেকেই। তবে এবার এই পুস্কারের একটু ভিন্ন রকম ব্যবহার করেছি আমরা। না, প্রতিযোগিতায় জয়ী বা হারানো জিনিস ফেরত দেওয়ার পুরস্কার নয়।‘বাল্যবিয়ে,মাদক বিক্রেতা আর উত্ত্যাক্তকারীদের’ খবর দিতে পারলেই দেওয়া হবে এই পুরস্কার। উপজেলা সদরসহ বিভিন্ন ইউনিয়নের মাঠ-ঘাট-স্কুল-কলেজসহ সব জায়গায় এই বিলবোর্ড টাঙ্গানো হচ্ছে ও সব জায়গায় লিফলেট বিতরণ করা হচ্ছে এবং প্রচার মাইকিং ও অতি দ্রুত বের করবো আমরা
খবর জানাতে ডায়াল করতে হবে (উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা- ০১৩১৫১৭১৩৫৪, দরিদ্র সংস্থা-০১৭৫০-৩৩৩৯২৯ ও গুরুদাসপুর থানা-০১৭১৩৩৭৩৮৬০ নম্বরে।) মূলত অপরাধ প্রবণতা কমাতে আর মানুষের বিবেককে জাগ্রত করতেই আমাদের ‘দরিদ্র সংস্থার’ এই ব্যাক্তিক্রমি আয়োজন। শুধু যে পুরস্কার দেওয়া হবে এমন নয়। মাস শেষে সর্বোচ্চ খবরদাতাকে সংস্থার পক্ষ থেকে দেওয়া হবে শুভেচ্ছা স্মারক।
দরিদ্র সংস্থা সূত্র জানিয়েছে- বেসরকারি এই সংগঠনটি মানবতার কল্যাণে নিবেদিত। ‘মানবতার দেওয়াল’ কর্মসূচির পাশাপাশি নতুন এই কর্মসূচি সংগঠনের পক্ষ থেকে হাতে নেওয়া হয়েছে। এতে করে সমাজের বালবিয়ে মাদকের বিস্তার আর উত্ত্যাক্তের হার কমবে। পুরস্কার হিসাবে দেওয়া হবে ১০০ টাকার মোবাইল ফ্লেক্সি লোড।
খোঁজ নিয়ে জানাগেল- ২০১৭ সালে প্রতিষ্ঠিত সংগঠনটি প্রথমে মানবতার দেওয়াল নামের একটি কর্মসূচি চালু করে। ওই কর্মসূচির আওতায় প্রতিমাসে প্রায় শতাধিক দুস্থ মানুষের হাতে পোশাক তুলে দেওয়া হয়। অল্পদিনে কর্মসূচিটি বেশ জনপ্রিয় হয়ে উঠে। এলাকার বিত্তবানরাও সংগঠনের পাশে দাঁড়ায়। তবে এবারের আয়োজনটা একটু ভিন্ন। এলাকার অপরাধ প্রবণতা কমাতে এই ভিন্নধর্মী আয়োজন করেছে সংগঠনটি।
উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. তমাল হোসেন বলেন- এটা খুব ভালো উদ্যোগ। এই উদ্যোগকে আমি ব্যক্তিগতভাবে সাধুবাদ জানাই।

কমেন্ট করুন

...

সাম্প্রতিক মন্তব্য

Top