logo
news image

ঢাকা ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি মধ্যবৃত্ত শিক্ষার্থীদের বিদ্যাপীঠ

প্রাপ্তি প্রসঙ্গ ডেস্ক।  ।  
ঢাকা ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির (ডিআইইউ) উদ্যোগে ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ারিং ও এইচএসসি (বিএম) পাশকৃত শিক্ষার্থীদের উচ্চ শিক্ষার সুযোগ, ক্ষেত্র ও সম্ভাবনা বিষয়ক সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়েছে।  শুক্রবার (১২ জুলাই) নাটোরের একটি হোটেলে নাটোর ও পাবনা জেলার সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানের আড়াই'শ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান প্রধান ও শিক্ষক সেমিনারে অংশ নেন।  
ডিআইইউ'র সহকারী অধ্যাপক ও অতিরিক্ত রেজিস্ট্রার মো. শাহ আলম চৌধুরীর সভাপতিত্বে সেমিনারে প্রধান অতিথি ছিলেন, ট্রাস্টি বোর্ডের সদস্য অ্যাডভোকেট শাহেদ কামাল পাটোয়ারী।   প্রধান বক্তা ছিলেন, সহযোগী অধ্যাপক মো. আব্দুল বাছেত।  
সেমিনারে বলা হয়, বাংলাদেশে উচ্চশিক্ষায় পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় এবং জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের পাশাপাশি বড় একটি অবস্থানে রয়েছে বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়।
এসব বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের গুণগত মান নিয়ে দ্বিধা থাকলেও তুলনামূলক ভালো অবস্থানে রয়েছে ঢাকা ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি। অল্প খরচে মানসম্মত শিক্ষাব্যবস্থা পরিচালনা করছে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানটি।
১৯৯৫ সালে প্রতিষ্ঠিত হয় ঢাকা ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি। বর্তমানে এখানে ৮টি বিভাগে প্রায় ৬ হাজার শিক্ষার্থী অধ্যয়নরত করছেন। প্রতি বিভাগে প্রায় ১৫ জন শিক্ষক রয়েছেন। স্থায়ী শিক্ষক ৮৭ জন এবং অস্থায়ী শিক্ষক ৭০ জন।
ব্যবসায় প্রশাসন, ফার্মেসি, কম্পিউটার বিজ্ঞান ও ইঞ্জিনিয়ারিং, ইলেকট্রিকাল ইঞ্জিনিয়ারিং অ্যান্ড টেলিকমিউনিকেশন, সমাজ বিজ্ঞান, ইংরেজি ইত্যাদি বিষয়ে অনার্স ও মাস্টার্স ডিগ্রি প্রদান করা হয়।
বিশ্ববিদ্যালয়টির চেয়ারম্যানের দায়িত্বে রয়েছেন ডা. মোহাম্মদ শহিদুল কাদির পাটোয়ারী, ভাইস চেয়ারম্যান ব্যারিস্টার শামীম হায়দার পাটোয়ারী, ভাইস চ্যানসেলর প্রফেসর ডা. কে এম মহসিন। এ ছাড়াও ট্রাস্টি বোর্ডের সদস্যরা হলেন- ইঞ্জিনিয়ার ফাজলুর রহমান, দেওয়ান আব্দুল হাই, মিসেস দেওয়ান সাদেকা, মিসেস সুবরিনা হায়দার, জেবুননেসা ইসলাম, অ্যাডভোকেট শাহেদ কামাল পাটোয়ারী, মাহবুব আলী, প্রফেসর ডা. মো. মাইনুল ইসলাম।
স্থায়ী ক্যাম্পাস
ঢাকার বনানীতে ঢাকা ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি একটি নিজস্ব ক্রয়কৃত ভবন আছে। এ ছাড়াও সাভারের বলিয়ার পূর্বে প্রায় ৮ একর নিজস্ব জমি আছে। সম্প্রতি দ্রুত স্থায়ী ক্যাম্পাস নির্মাণের জন্য ঢাকা ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি ঢাকার বাড্ডার সাতারকুলে এক একরের অধিক জায়গা ক্রয় করেছে। ২০১২ সালের গত ৭ এপ্রিল স্থায়ী ক্যাম্পাসের নির্মাণ কাজ শুরু করেছে।
ঢাকা ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটিতে ৮টি বিভাগে চলে শিক্ষাকার্যক্রম-
ফ্যাকাল্টি অব ল’ (আইন বিভাগ) ও পড়াশোনার খরচ
এলএল বি অনার্স বনানী ক্যাম্পাসে ২ লাখ ৭৫ হাজার টাকা, এলএলবি অনার্স ফার্মগেট ক্যাম্পাসে ২ লাখ টাকা, এলএলবি (পাস) বনানী ক্যাম্পাস ৯০ হাজার টাকা, এলএলবি (পাস) ফার্মগেট ক্যাম্পাস ৯০ হাজার টাকা, এলএলএম (১ বছর) ৭০ হাজার টাকা, এলএলএম (২ বছর) ৮৫ হাজার টাকা, মাস্টার্স অব হিউম্যান রাইটস ল’ ৬৫ হাজার টাকা।
ফ্যাকাল্টি অব বিজনেস স্টাডিজ (ব্যবসায় প্রশাসন শিক্ষা বিভাগ)
বিবিএ বনানী ক্যাম্পাস ৩ লাখ টাকা, বিবিএ বনানী ক্যাম্পাস ইভনিং শিফট ২ লাখ ৭০ হাজার টাকা বিবিএ ফার্মগেট ক্যাম্পাস ডে শিফট ৩ লাখ টাকা, বিবিএ ফার্মগেট ক্যাম্পাস ইভনিং শিফট ২ লাখ ৭০ হাজার টাকা, এমবিএ (২ বছর) বনানী ক্যাম্পাস ১ লাখ ২০ হাজার টাকা, এমবিএ (২ বছর) ফার্মগেট ক্যাম্পাস ১ লাখ ১০ হাজার টাকা, এমবিএ (১ বছর) ৯০ লাখ টাকা।
ফ্যাকাল্টি অব আর্টস অ্যান্ড সোসিয়াল সাইন্স
বিএ অনার্স ইন ইংলিশ ডে শিফট ১ লাখ ৬০ হাজার টাকা, বিএ অনার্স ইন ইংলিশ ইভনিং শিফট ১ লাখ ৫০ হাজার টাকা, এমএ ইন ইংলিশ (২.৬ বছর) ৭০ লাখ টাকা, এমএস ইন ইংলিশ (১ বছর) ৬৫ হাজার টাকা, বিএসএস অনার্স ইন সোসিওলজি ডে শিফট ১ লাখ ৩৫ হাজার টাকা, বিএসএস অনার্স ইন সোসিওলজি ইভনিং শিফট ১ লাখ ২৫ হাজার টাকা, এমএসএস ইন সোসিওলজি (১ বছর) ৬০ হাজার টাকা, এমএসএস ইন সোসিওলজি (২ বছর) ৬৫ হাজার টাকা।
ফ্যাকাল্টি অব সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং
বিএসসি ইন কম্পিউটার সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং ডে শিফট ২ লাখ ৫০ হাজার টাকা, বিএসসি ইন কম্পিউটার সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং ইভনিং শিফট ১ লাখ ৫০ হাজার টাকা, বিএসসি ইন ইইটিই ডে শিফট ৩ লাখ ৫০ হাজার টাকা, বিএসসি ইন ইইটিই ইভনিং শিফট ২ লাখ টাকা, এমএসসি ইন কম্পিউটার সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং জেনারেল গ্রুপ ৮৫ হাজার টাকা, এমএসসি ইন কম্পিউটার সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং থিসিস গ্রুপ ১ লাখ ৫ হাজার টাকা
ফ্যাকাল্টি অব ফার্মেসি
বি. ফার্ম অনার্স ইন ফার্মেসি ৩ লাখ ৭৫ হাজার টাকা
প্রতি বিভাগে ভর্তি ফি
বিবিএ ডে অ্যান্ড ইভনিং ১৬ হাজার থেকে ১৮ হাজার টাকা, এলএলবি অনার্স ডে এন্ড ইভনিং ১৬ হাজার থেকে ১৮ হাজার টাকা, ইংলিশ অনার্স ডে অ্যান্ড ইভনিং ১৩ হাজার টাকা, সোসিওলজি অনার্স ডে অ্যান্ড ইভনিং ২৬ হাজার টাকা, সিএসই ডে ১৬ হাজার থেকে ১৮ হাজার টাকা, সিএসই ইভনিং ১৩ হাজার টাকা, ইইটিই ডে ২৬ হাজার টাকা, ইইটিই ইভনিং ১৬ হাজার থেকে ১৮ হাজার টাকা, ফার্মাসি ২৬ হাজার টাকা, সকল মাস্টার্স প্রোগ্রাম ১৩ হাজার টাকা, এলএলবি (পাস) ১৩ হাজার টাকা।
ভর্তির যোগ্যতা
এসএসসি এবং এইচএসসিতে কমপক্ষে জিপিএ ২.৫০ পেতে হবে আলাদাভাবে। ফার্মেসি বিভাগে পড়তে চাইলে এইচএসসিতে বায়োলজি এবং কেমেস্ট্রি বিষয় থাকতে হবে। এমবিএ এবং ইংরেজি বিষয়ে এমএ কোর্সে ভর্তি হতে একজন শিক্ষার্থীকে ব্যাচেলর ডিগ্রিসহ সর্বমোট ৫ পয়েন্ট থাকতে হবে।
ভর্তি কার্যক্রম
পরীক্ষার পূর্বে অ্যাডমিশন অফিস থেকে ৪০০ টাকার বিনিময়ে আবেদনপত্র সংগ্রহ করে তা পূরণ করে অফিসে জমা দিতে হবে। অনলাইন থেকে ওয়েব সাইট http://www.diu.net.bd/ আবেদনপত্র সংগ্রহ করে ৪০০ টাকার বিনিময়ে অফিসে জমা দিতে হবে। পরীক্ষার পরে উত্তীর্ণ প্রার্থীরা অ্যাডমিশন অফিসে যোগাযোগ করবে। এসএসসি এবং এইচএসসি মার্কশিটের ফটোকপি, ২ কপি স্ট্যাম্প এবং ৪ কপি পাসপোর্ট (সব কিছু সত্যায়িত)।
ক্রেডিট ট্রান্সফার
ন্যূনতম ৩.৭৫ থাকলে দেশে ট্রান্সফার করা যায়। বিদেশে ভার্সিটি থেকে ক্রেডিট ট্রান্সফার করা যায় না। কিন্তু শিক্ষার্থী নিজ উদ্যোগে ক্রেডিট ট্রান্সফার করতে পারবে।
শিক্ষাবৃত্তি
মেধাবী শিক্ষার্থীরা অর্থাৎ জিপিএ ৫.০০ প্রাপ্তরা ১০০%, জিপিএ ৪.৭৫ থেকে ৪.৯৯ প্রাপ্তরা ৭৫%, ৪.৫০ থেকে ৪.৭৪ প্রাপ্তরা ৫০%, জিপিএ ৪.০০ থেকে ৪.৪৯ প্রাপ্তরা ২৫% বৃত্তি সুবিধা পাবে ১ বছরের জন্য। যাদের সিজিপিএ ৪.০০ ন্যূনতম থাকবে তারা ৫০% থেকে ১০০% বৃত্তি সুবিধা পাবে।
অন্যান্য সুবিধা
ঢাকা ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি ক্রিকেট, ফুটবল, দাবা, সাইবার গেইমস ইত্যাদি খেলার টুর্নামেন্ট হয়ে থাকে। এদের নিজস্ব কোনো মাঠ নেই। ভাড়া করা মাঠে খেলা সম্পাদন করে থাকে।
লাইব্রেরি ব্যবস্থা
এ বিশ্ববিদ্যালয়ে একটি লাইব্রেরি রয়েছে। লাইব্রেরি ভবন অ্যাডমিশন ভবনের ২য় তলায় অবস্থিত। এখানে প্রায় ৩০ হাজার বই রয়েছে। এ ছাড়া এখানে টেক্সট বুক, জার্নালস, রেফারেন্স বুকস, ম্যাপ, রের কালেকশন বুকস ইত্যাদি পাওয়া যায়। এক সাথে ৩৫-৪৫ জন ছাত্র-ছাত্রী বসে পড়তে পারবে। এখানে লাইব্রেরি কার্ডধারীরা বই পেতে পারে এবং বাসায় বই নিয়ে যেতে পারবে। লাইব্রেরি খোলা হয় সকাল ৮টা ৩০ মিনিটে এবং বন্ধ হয় রাত ৯টায়।
অন্যান্য
বিশ্ববিদ্যালয়টির মোট ৬টি ক্লাব রয়েছে। সদস্য পদ আহবান করা হলে ফর্মের মাধ্যমে সদস্য হওয়া যায়। প্রশাসনিক ভবন বিশ্ববিদ্যালয়ের মধ্যেই অবস্থিত। সকল প্রকার তথ্য প্রশাসনিক ভবন থেকেই সংগ্রহ করা যায়। প্রতিটি ক্লাস ১ ঘণ্টা ৪৫ মিনিট করে নেয়া হয়। বিভিন্ন সময়ে বিভিন্ন ক্লাস নেয়া হয়।
ওয়েব সাইটে রেজাল্ট, বন্ধের ঘোষণা, নোটস, এসাইনমেন্ট ইত্যাদি প্রায় সকল প্রকার তথ্য পাওয়া যায়।
ট্রাস্টি বোর্ডের সদস্য অ্যাডভোকেট শাহেদ কামাল পাটোয়ারী বলেন, আমরা সব সময় মানসম্মত শিক্ষাকে ব্যবস্থায় বিশ্বাস করি। বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় বলতে অনেক টাকা। এ হিসাবে বাইরে থেকে শিক্ষার্থীদের প্রকৃত শিক্ষা দিয়ে থাকি। পরিবারের অভিভাবকদের ওপর অর্থনৈতিক চাপ কমিয়ে সন্তানদের উচ্চশিক্ষা নিশ্চিত করার একমাত্র প্রতিষ্ঠান ঢাকা ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি।
তিনি বলেন, এ প্রতিষ্ঠানে একজন শিক্ষার্থী সব রকম সুযোগ সুবিধা পাবে। তার প্রকৃত মানসিক বিকাশ এবং আধুনিক জগৎ সম্পর্কে জানার দিক উন্মোচন করবে এ বিশ্ববিদ্যালয়।
তিনি আরো বলেন, দেশে অনেক বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় রয়েছে। তবে মানের দিক বিবেচনা করলে আমরা পিছিয়ে নেই। ঢাকা ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি শিক্ষার্থীদের প্রকৃত শিক্ষা দিচ্ছে।

কমেন্ট করুন

...

সাম্প্রতিক মন্তব্য

Top