logo
news image

ঈশ্বরদী আহলে সুন্নাত ওয়াল জামাতের সংবাদ সম্মেলন

ঈশ্বরদী (পাবনা) সংবাদদাতাঃ
ঈশ্বরদী আহলে সুন্নাত ওয়াল জামাতের পক্ষ হতে রবিবার সকালে ঈশ্বরদী প্রেসকাবে সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে। এতে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন, আহলে সুন্নাত ওয়াল জামাত ঈশ্বরদী শাখার সভাপতি ও মাদ্রাসা  মাজহার-ই- ইসলাম এর অধ্যক্ষ মাওলানা ক্বারী মুফতী আলহাজ্ব মোহাম্মদ আবুল খায়ের রযাবী । গত ১২ মে ঈশ্বরদী পৌর এলাকার ফতেমোহাম্মদপুরে ধর্মিয় মতবাদ নিয়ে সৃষ্ঠ উত্তেজনা প্রসংগে তিনি বলেন, ‘লা-মাযহাবী সালাফী’ নামক সংগঠন কর্তৃক আয়োজিত ইফতার মাহফিল পূর্ব ধর্মীয় আলোচনা সভায় উক্ত সংগঠনের কতিপয় ব্যক্তি মহানবী হযরত মোহাম্মদ (সা:) সম্পর্কে কটুক্তি, ইসলাম ও মাযহাবকে নিয়ে মিথ্যাচার এবং অপব্যাখ্যা করেন। অপব্যাখার উদাহরণ হিসেবে তিনি জানান,  প্রথমত পবিত্র লাইলাতুল বারাত ( শবে বরাত ) যারা পালন করে তারা চির জাহান্নামী। আর পালনকারী ওলামাগণ ধর্ম ব্যবসায়ী হিসেবে আখ্যায়িত করা হয়। দ্বিতীয়ত: পবিত্র রমজান মাসকে তিন ভাগে যেমনÑ রহমত, মাগফেরাত ও নাজাত। এমন কোন কিছু কোথাও উল্লেখ নাই। এটা ধর্ম ব্যবসায়ীদের বানানো । তৃতীয়ত যারা কবর জিয়ারত করেন ও মৃত ব্যক্তির জন্য পবিত্র কোরআন তেলাওয়াত করেন তারা সবাই চির জাহান্নামী । এছাড়াও বিভিন্ন ধরণের হেয় ও তাচ্ছিল্য এবং উস্কাানীমূলক অনবরত বক্তব্য দেয়া হয়েছে বলে সভাপতি উল্লেখ করেন।
 একারণে স্থানীয় আলেম, ওলামা, মুসল্লীগণ, আহলে সুন্নাত ওয়াল জামাতের সদস্যগণ, তাবলীগ জামাতের সদস্যগণসহ হানাফী মাযহাবের অনুসারীরা উক্ত ইফতার মাহফিলে গিয়ে ঐ সময় বক্তব্য প্রদানকারী উক্ত লা-মাযহাবী সালাফী সংগঠনের বেলায়েত হোসেন সাহেবকে নবীজি ও ইসলাম এবং মাযহাবকে নিয়ে উল্লেখিত মিথ্যাচার, অপব্যাখ্যা, তাচ্ছিল্য এবং উষকানীমূলক বক্তব্য প্রত্যাহার করে পবিত্র কোরআন ও হাদিসের আলোকে ইসলাম এবং মাযহাবের সঠিক ব্যাখ্যা প্রদান করার জন্য অনুরোধ করা হয় বলে আহলের সভাপতি জানান।
তিনি আরো বলেন, লা-মাযহাবী সালাফী সমর্থক কতিপয় ব্যক্তি বেলায়েত হোসেন সাহেবের বক্তব্য সমর্থন করে প্রতিবাদকারীদের অকথ্য ভাষায় কথাবার্তা বলার কারণে উত্তেজনাকর পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়। যা পরবর্তীতে নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে যাওয়ার আশঙ্কায় আমরা ঈশ্বরদী থানা পুলিশের সহযোগিতা চাইলে ঈশ্বরদী থানার অফিসার ইনচার্জ জনাব বাহাউদ্দিন ফারুকী সাহেবের উপস্থিতিতে এবং স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিদের সহযোগিতায় পরিস্থিতি সম্পূর্ণ নিয়ন্ত্রণে আসে। ওই রাতেই ঈশ্বরদী সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জহুরুল হক সাহেবের উপস্থিতিতে ঈশ্বরদী থানায় উক্ত ঘটনার সুষ্ঠু ও সুন্দর সমাধান হয় বলে তিনি জনিয়েছেন।
ঘটনার সুষ্ঠু ও সুন্দরভাবে সমাধানের পর লা-মাযহাবী সালাফী সমর্থক ও উক্ত ইফতার মাহফিলের আয়োজক জনৈক মঈনুদ্দিন পত্রিকায় প্রকৃত সত্য ঘটনা আড়াল করে সম্পূর্ণ মিথ্যা, বানোয়াট ও ভিত্তিহীন তথ্য এবং বক্তব্য দিয়ে সংবাদ প্রকাশ করিয়েছে। সম্মেলনে এই ঘটনায় তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানানো হয়। এসময় প্রকৃত ঘটনা পত্রিকায় প্রকাশের মাধ্যমে জনসমক্ষে তুলে ধরার জন্য সাংবাদিকদের অনুরোধ জানানো হয়।
সম্মেলনে উপস্থিত বক্তারা আরো বলেন, ধর্মীয় সংগঠন অনেক আছে। এক অপরের সাথে মতপার্থক্য থাকতে পারে। তবে ধর্ম নিয়ে মিথ্যাচার, অপব্যাখ্যা বা বিভ্রান্ত ছড়ানো কারো কাছে কাম্য নয়। আমরা মনে করি পবিত্র কোরআন ও হাদিসের আলোকে সঠিক ব্যাখ্যা সকলের মাঝে তুলে ধরা উচিত। কারণ ইসলাম ধর্ম হচ্ছে শান্তির ধর্ম। এসময় মাওলানা সাইদুর রহমান, মাওলানা মিকাইল সাহেব, আলহাজ্ব নূর উদ্দিন, কামাল আশরাফি, এস এস কামাল, ইসলাম হোসেন আতিয়ার, আবু রায়হান, সৈয়দ নূরুল আলম, শাহদত হোসেন মুন, মিজানুর রহমান মুন প্রমূখ।

সাম্প্রতিক মন্তব্য