logo
news image

চোরের মেশানো ঘুমের ওষুধের প্রভাবে ঈশ্বরদীর কৃষকলীগ সভাপতি লাইফ সাপোর্টে

ঈশ্বরদী (পাবনা) সংবাদদাতাঃ
চোরের মেশানো ঘুমের ওষুধের প্রভাবে ঈশ্বরদী উপজেলা কৃষকলীগ সভাপতি ও উপজেলা ধান চাউল মিল মালিক গ্রুপের সভাপতি ফজলুর রহমান মালিথা রাজশাহী সিডিএম  হাসপাতালে লাইফ সাপোর্টে রয়েছেন। গত ৯ই মে বৃহস্পতিবার ভোরে কৌশলে ঘুমের ওষুধ মেশানো দুধ পান করে অচেতন হয়ে ঈশ্বরদী হাসপাতালে ভর্তি হন গৃহকর্তা ফজলুর রহমান মালিথা ও তার স্ত্রী পারসিনা বেগম। ঈশ্বরদীতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় পারসিনা বেগমের অবস্থা উন্নতি হলেও ফজলু মালিথার অবস্থার উন্নতি না হওয়ায় তাঁকে শুক্রবার সন্ধ্যায় রাজশাহী সিডিএম হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানকার চিকিৎসকরা প্রথমে ফজলু মালিথাকে আইসিইউতে (নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্র) রাখেন। এতেও তাঁর অবস্থার কোন উন্নতি না হলে রাতে তাঁকে লাইফ সাপোর্টে দেয়া হয়।
ফজলুর রহমান মালিথার ছেলে পিয়াস মুঠোফোনে লাইফ সাপোর্টের বিষয়টি শনিবার নিশ্চিত করেন। তিনি তাঁর বাবার সুস্থতার জন্য সবার কাছে দোয়া কামনা করেছেন।
উল্লেখ্য, বুধবার রাতে জানালার ধারের গ্যাসের চুলায় স্ত্রী পারসিনা বেগম দুধ জ্বাল করছিলেন। চোরের দল কোনো এক সময় দুধে ঘুমের ওষুধ মিশিয়ে দেয়। সেহরির সময় ফজলু মালিথা ও তাঁর স্ত্রী সেই দুধ দিয়ে ভাত খান। এরপর ফজলু মালিথা ঘুমে অচেতন হয়ে পড়েন। দুধের মধ্যে ঘুমের ওষুধ  মিশিয়ে অচেতন করে দুইজন ঘরে ঢুকে মালামাল চুরি করার চেষ্টা করে। এ সময় স্ত্রী পারসিনা চিৎকার করলে চোরেরা তার গলা থেকে সোনার চেইন ছিনিয়ে নিয়ে পালায়। পরে আশেপাশের লোকজন অচেতন অবস্থায় তাদের উদ্ধার করে হাসপাতালে নেয়। 

কমেন্ট করুন

...

সাম্প্রতিক মন্তব্য