logo
news image

বাগাতিপাড়ায় নিখোঁজ সাত্ত্বিকের বাড়িতে নেই জিপিএ ৫ পাওয়ার আনন্দ

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ
নাটোরের বাগাতিপাড়ায় কাদিরাবাদ ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুলের ছাত্র আল মুনতাসির সাত্ত্বিক (১৬) জিপিএ-৫ পেয়ে এসএসসিতে উত্তীর্ণ হলেও তার পরিবারে নেই কোন আনন্দ। ওই বাড়িতে এখন চলছে সন্তান হারানো আহাজারি। ফল প্রকাশের একদিন আগে রোববার সকালে বাড়ি থেকে বের হওয়ার পর নিখোঁজ হয় আল মুনতাসির সাত্ত্বিক। ওই দিন রাতে থানায় এ সংক্রান্ত একটি লিখিত অভিযোগ করা হলেও তার সন্ধান করতে পারেনি পুরিশ। নিখোঁজ আল মুনতাসির সাত্ত্বিক বাগাতিপাড়া টেকনিক্যাল অ্যান্ড বিজনেস ম্যানেজমেন্ট ইন্সটিটিউটের অধ্যক্ষ শরীফ উদ্দীন আহম্মেদের দ্বিতীয় ছেলে। তার বাড়ি উপজেলার সোনাপাতিল এলাকায়।

অধ্যক্ষ শরীফ উদ্দীন আহম্মেদ জানান, তাঁর ছেলে আল মুনতাসির সাত্ত্বিক রোববার বেলা ১১টার দিকে বাড়ি থেকে বের হয়। সন্ধ্যার পরও বাড়িতে ফিরে না এলে প্রতিবেশীসহ বিভিন্ন আত্মীয় স্বজনের বাড়িতে খোঁজাখুঁজি করা হয়। কিন্তু সাত্ত্বিকের কোন খোঁজ মেলেনি। আল মুনতাসির সাত্ত্বিক বাগাতিপাড়ার কাদিরাবাদ ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুল থেকে বিজ্ঞান বিভাগে এবারের এসএসসি পরীক্ষায় অংশ নেয়। সোমবার প্রকাশিত ফলাফলে সে জিপিএ ৫ পেয়েছে। তবে এ ফল প্রকাশের আগের দিন সে নিখোঁজ হয়। তিনি আরও জানান, সাত্ত্বিক খুবই ধার্মিক ছিল। বাড়ি থেকে তেমন বাইরে বের হতো না। বাড়িতে বসে প্রায় সব সময় কোরআন-হাদীস পড়তো।

এদিকে ছেলেকে কোথাও খুঁজে না পেয়ে অধ্যক্ষ শরীফ উদ্দিন আহম্মেদ ছেলের নিখোঁজের বিষয়ে রোববার রাতে বাগাতিপাড়া থানায় একটি লিখিত অভিযোগ করেছেন। সাত্ত্বিক নিখোঁজের পর থেকে তার বাবা-মাসহ পরিবারের সদস্যরা ভেঙ্গে পড়েছেন। ছেলেকে ফিরে পেতে তার বাবা-মা সকলের কাছে আকুতি জানাচ্ছেন। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইসবুকের বিভিন্ন আইডি থেকেও দেওয়া হচ্ছে বিভিন্ন স্ট্যাটাস। ছেলেকে উদ্ধারের জন্য প্রশাসনসহ সকলের সহযোগিতা চাইছেন। কেউ তার সন্ধান পেলে তার বাবার মোবাইল নম্বর ০১৭১২-৯৪৫৫৮৭ এ অথবা বাগাতিপাড়া থানায় যোগাযোগের জন্য পরিবারের পক্ষ থেকে অনুরোধ করা হয়েছে।

এ বিষয়ে বাগাতিপাড়া মডেল থানার ওসি সিরাজুল ইসলাম শেখ পিপিএম বলেন, অভিযোগ পাওয়ার পরপরই সকল থানায় বার্তা পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে। এ ঘটনায় উপজেলার কসবা মালঞ্চি মসজিদের সাবেক ইমাম আনোয়ার হোসেনকে রোববার রাতে থানায় ডেকে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। সাবেক ওই ইমাম নিখোঁজ সাত্ত্বিককে কোরআন শিক্ষা দিয়েছিলেন। কোরআন শেখানোর সুবাদে সাত্ত্বিকের বাড়িতে তার যাওয়া-আসা ছিল। তবে জিজ্ঞাসাবাদ শেষে তাকে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। নিখোঁজ ছাত্রকে উদ্ধারে সব ধরনের চেষ্টা অব্যহত আছে বলে ওসি জানান।

কমেন্ট করুন

...

সাম্প্রতিক মন্তব্য

Top