logo
news image

মুক্তিযোদ্ধা হত্যার আসামী গ্রেফতার ও ফাঁসির দাবীতে মানববন্ধন ও পথসভা

ঈশ্বরদী (পাবনা) সংবাদদাতাঃ
ঈশ্বরদীর রূপপুরের মুক্তিযোদ্ধা ও আওয়ামী লীগ নেতা মোস্তাফিজুর রহমান সেলিমকে গুলি করে হত্যার প্রতিবাদে এবং প্রকৃত আসামী ও  মদদদাতা আসামীদের দ্রুত গ্রেফতার ও ফাঁসির দাবীতে মুক্তিযোদ্ধা ও এলাকাবসাসীর যৌথ আয়োজেন রবিবার পাকশীর রূপপুর মোড়ে বিশাল মানববন্ধন ও পথসভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। পাকশী ইউনিট কমান্ডের সাবেক কমান্ডার জাহাঙ্গির আলমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত পথসভায় নিহত সেলিমের পুত্র তানভীর রহমান তন্ময় হত্যাকারীদের মদদ দাতাদেরও দ্রুত গ্রেফতারের দাবী জানিয়েছেন। এসময় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, সাবেক সংসদ সদস্য ও বিএনপি’র কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য সিরাজুল ইসলাম সরদার,  মুক্তিযোদ্ধা গোলাম মোস্তফা চান্না, হবিবুল ইসলাম হব্বুল, ফজলুর রহমান ফান্টু,     জেলা পরিষদের সদস্য সাইফুল ইসলাম বাবু মন্ডল, শিক্ষক সমিতির সভাপতি ফজলুল হক, আওয়ামী লীগ নেতা রেজাউল করিম রাজা, যুবলীগ নেতা আনোয়ার হোসেন, সাইফুজ্জামান পিন্টু, মোস্তাফিজুর রহমান ছকি, মহিদুল ইসলাম প্রমূখ।
সভায় বক্তরা ধারাবাহকভাবে গণঅনশন সহ আরো বৃহত্তর কর্মসুচি ঘোষণা করা হবে বলে জানিয়েছেন। এরআগে গত ২রা মার্চ ঈশ্বরদীতে অনুষ্ঠিত মানববন্ধন হতে মুক্তিযোদ্ধারা সরকারি সকল কর্মসূচি বর্জনের ঘোষণা দেন। এছাড়াও ২৬শে মার্চ মহান স্বাধীনতা দিবসের দিনে কালো পতাকা উত্তেলন এবং মুক্তিযোদ্ধা মৃত্যুবরণ করলে সরকারি পর্যায়ের গার্ড অব অনার গ্রহন করা হবে না বলে ঘোষণা দিয়েছেন।  
উল্লেখ্য, গত ৬ ফেব্রুয়ারি রাত আনুমানিক নয়টার দিকে মুক্তিযোদ্ধা সেলিম মোটর সাইকেল যোগে নিজ বাড়িতে প্রবেশের সময় আঁততায়িদের গুলিতে আহত হয়ে ঈশ^রদী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে মারা যান।  এঘটনায় নিহত সেলিমের ছেলে তন্ময় বাদি হয়ে অজ্ঞাতানামা আসামী করে থানায়  হত্যা মামলা দায়ের করেন।
হত্যাকান্ডে জড়িত থাকার সন্দেহে গত ১০ই ফেব্রুয়ারী সাবেক যুবলীগ নেতা ও পাকশী ইউপি চেয়ারম্যান এনামুল হক বিশ্বাসের ভাতিজা আবদুল্লাহ আল বাকি ওরফে আরজু বিশ্বাস (৪৮) এবং গত ৭ই মার্চ পুত্র মোস্তাফিজুর রহমান রকি বিশ^াসকে (৩০) গ্রেফতার করেছে পুলিশ। রকি এখনও পুলিশের রিমান্ডে রয়েছে। 

সাম্প্রতিক মন্তব্য