logo
news image

নাটোরের চারটি আসনে ১৫০টি ভোট কেন্দ্র ঝুঁকিপূর্ণআশঙ্কা

নিজস্ব প্রতিবেদক, নাটোর।  ।  
নাটোরে চারটি আসনের ৫৬৬টি কেন্দ্রের মধ্যে ১৫০টি ভোট কেন্দ্র ঝুঁকিপূর্ণ হিসেবে চিহ্নিন্ত করেছে জেলা পুলিশ এবং বিভিন্ন গোয়েন্দা সংস্থা। এসব ঝুঁকিপুর্ণ কেন্দ্র গুলোতে বাড়তি নিরাপত্তামূলক ব্যবস্থা নিয়েছে জেলা পুলিশ। তবে নাটোর-১ (লালপুর-বাগাতিপাড়া) ও নাটোর-২ (সদর-নলডাঙ্গা) আসনে বেশি সহিংসতার আশংকা করছে জেলা পুলিশ। তবে সহিংসতা প্রতিরোধে পূর্ণ প্রস্তুতি রয়েছে জানিয়েছেন জেলা পুলিশ সুপার।
সূত্র জানায়, নাটোরে চারটি আসনে ভোট কেন্দ্র রয়েছে মোট ৫৬৬টি। এর মধ্যে বিভিন্ন গোয়েন্দা সংস্থা নাটোর-১ (লালপুর-বাগাতিপাড়া) আসনে ৩৪টি, নাটোর-২ (সদর-নলডাঙ্গা) আসনে ৪২টি, নাটোর-৩ (সিংড়া) আসনে ৩০টি এবং নাটোর-৪ (গুরুদাসপুর-বড়াইগ্রাম) আসনে মোট ৪৪টি ভোট কেন্দ্রকে ঝুঁকিপূর্ণ হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছে। তবে চারটি আসনে মধ্যে ৫০টিকে সবচেয়ে বেশি ঝুঁকিপূর্ণ হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছে। এর মধ্যে নাটোর-১ (লালপুর-বাগাতিপাড়া) এবং নাটোর-২ (সদর-নলডাঙ্গা) আসনের মোট ৩০টি কেন্দ্রে বেশি সহিংসতার ঝুঁকি রয়েছে। সবচেয়ে কম ঝুঁকি রয়েছে নাটোর-৩ (সিংড়া) আসনে।
জেলা পুলিশের তথ্য অনুযায়ী, একটি সাধারণ ভোট কেন্দ্রের জন্য ১০জন আনসার সদস্য, অস্ত্রধারী ২জন পুলিশ এবং একজন গ্রাম পুলিশ
নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকবে। তবে ঝুঁকিপুর্ণ কেন্দ্রগুলোতে থাকবে অস্ত্রধারী পুলিশের পাশাপাশি আনসার সদস্যের বাড়তি সংখ্যা। এছাড়া এবারের একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নাটোরের চারটি আসনে ১৪ প্লাটুন বিজিবি, ৫১৪জন সেনা সদস্য, ১২৮৫জন পুলিশ সদস্য, ৬হাজার ৭৯২জন আনসার সদস্য, ১০০জন র‌্যাব সদস্য আইন-শৃংখলা এবং ভোটকেন্দ্রের নিরাপত্তায় নিয়োজিত থাকবে। এছাড়া ২০জন নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট এবং ৮জন বিচারিক ম্যাজিষ্ট্রেট দায়িত্ব পারন করবেন।
এ বিষয়ে জেলা পুলিশ সুপার সাইফুল্লাহ আল মামুন বলেন, প্রথমে ১৫০টিকে ঝুঁকিপূর্ণ (অতি গুরুত্বপূর্ণ) কেন্দ্র হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছিল। তবে তদন্ত শেষে বর্তমানে ৫০টিকে অতি গুরুত্বপূর্ণ হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছে। এসব কেন্দ্রে অধিক গুরুত্ব সহকারে মনিটরিং করা হবে।’ এছাড়া শহরে টহলের সংখ্যা কমিয়ে ঝুঁকিপূর্ণ এলাকায় টহল জোরদার করা হবে। তাছাড়া ঝুঁকিপূর্ণ কেন্দ্রগুলোতে বাড়তি নজরদারী রাখা হবে।
জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা আব্দুর রহিম জানান, নাটোরে ৪টি সংসদীয় আসনে দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে মোট ভোটকেন্দ্র ছিল ৫২২টি। এবার মোট কেন্দ্র ৫৬৬টি। জেলার মোট ভোটার ১৩ লাখ ৩,৮৭৭ জন। এর মধ্যে ৬ লাখ ৫০ হাজার ৫০৭ জন পুরুষ এবং ৬লাখ ৫৩হাজার ৩৭০জন নারী। আর ২হাজার ৬৭৫টি কক্ষে ভোট দেবেন তারা।

কমেন্ট করুন

...

সাম্প্রতিক মন্তব্য