logo
news image

ইসির সভা বর্জন করেছে ঐক্যফ্রন্ট

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকা।  ।  
একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সকল প্রার্থীর জন্য ‘সমান সুযোগ’ চেয়ে মঙ্গলবার (২৫ ডিসেম্বর) দুপুরে নির্বাচন কমিশনের সঙ্গে (ইসি) বৈঠক বসেছিল জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের নেতারা। মঙ্গলবার বেলা ১২টার দিকে আগারগাঁওয়ে নির্বাচন কমিশন ভবনে প্রধান নির্বাচন কমিশনারের নেতৃত্বে কমিশনারদের সঙ্গে বৈঠকে বসেন ঐক্যফ্রন্টের শীর্ষ নেতারা।
তবে বৈঠক শেষ না হতেই সেই সভা বর্জন করে ড. কামাল হোসেন-ফখরুলরা। পরে ফখরুল সাংবাদিকদের বলেন, সারা দেশে যে হামলা হচ্ছে এসব হামলার অভিযোগ করতে আমরা ইসির সঙ্গে বৈঠকে বসেছিলাম। কিন্তু সিইসির যে আচরণ করেছেন তাতে আমরা বাকরুদ্ধ। এর প্রতিবদে আমরা সভা থেকে বেরয়ে আসি। এ সময় তিনি বলেন, আমাদের ওপর হামলা করে নির্বাচন থেকে বের করে দেওয়ার চেষ্টা করা হচ্ছে। কিন্তু আমরা শেষ পর্যন্ত মাঠে থাকবে। নির্বাচন বর্জন করবো না।
সরকার ও নির্বাচন কমিশন (ইসি) মিলে ভোট বানচালের পাঁয়তারা করছে বলে অভিযোগ করেছেন বিএনপি মহাসচিব। তিনি বলেন, সারা দেশে যে পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়েছে তাতে জণগণ সিদ্ধান্ত নেবে ভোট নিয়ে তারা কি করবে।
মির্জা ফখরুল বলেন, সারাদেশে ধানের শীষের প্রার্থীদের ওপর হামলা চালানো হচ্ছে। প্রচারে বাধা দেয়া হচ্ছে।গ্রেফতার, মামলা চলছেই। পোস্টার লাগাতে দেয়া হচ্ছেন। কোথাও কোথাও পুলিশের উপস্থিতিতে হামলা করা হচ্ছে। প্রশাসনকে জানিয়েও কোনো প্রতিকার পাওয়া যাচ্ছে। গতকালও ২৮টি স্থানে হামলা হয়েছে। তিনি আরো বলেন, এসব বিষয় নির্বাচন কমিশনকে জানানো হয়েছে।এখন দেখি তারা কি ব্যবস্থা নেয়।
এর আগে দুপুর ১২ টায় নির্বাচনের পরিস্থিতি নিয়ে সিইসির সঙ্গে বৈঠকে বসেন জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের শীর্ষ নেতারা। এতে উপস্থিত ছিলেন ড. কামাল হোসেন, মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. মঈন খান, মির্জা আব্বাস, নজরুল ইসলাম খান, গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, গণফোরামের সাধারণ সম্পাদক মোস্তফা মহসিন মন্টু, ডা. জাফরুল্লাহ প্রমুখ। এছাড়া প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কেএম নূরুল হুদাসহ অন্যান্য কমিশনাররা উপস্থিত ছিলেন।

কমেন্ট করুন

...

সাম্প্রতিক মন্তব্য

Top