logo
news image

বড়াইগ্রামে গৃহপরিচারিকাকে অমানুষিক নির্যাতন

নিজস্ব প্রতিবেদক, বড়াইগ্রাম নাটোর
নাটোরের বড়াইগ্রামে তুচ্ছ ঘটনায় হাসিনা খাতুন  (২২) নামে এক গৃহপরিচারিকাকে অমানুষিক নির্যাতন করা হয়েছে। শুক্রবার এ ঘটনায় থানায় লিখিত অভিযোগ করা হয়েছে। নির্যাতনের শিকার গৃহবধু উপজেলার আগ্রাণ গ্রামের সোলায়মান হোসেনের বিধবা মেয়ে। 
গৃহপরিচারিকা হাসিনা খাতুন জানান, তিনি গত দুই মাস যাবৎ উপজেলার মাঝগ্রামের আলী মন্ডলের বাড়িতে গৃহপরিচারিকা হিসাবে কর্মরত আছেন। বৃহস্পতিবার সকালে দুই মাসের বেতন চাইলে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে আলী মন্ডল ও তার ছেলে ইমরান মন্ডলসহ চারজন মিলে বাঁশের লাঠি ও বাটাম দিয়ে তাকে এলোপাথাড়ি পিটিয়ে আহত করে। পরে খবর পেয়ে প্রতিবেশীরা এগিয়ে গিয়ে তাকে উদ্ধার করে বড়াইগ্রাম হাসপাতালে ভর্তি করেন। তবে গৃহকর্তা আলী মন্ডলের স্ত্রী আনোয়ারা খাতুনের দাবী, তার বাড়ি থেকে ৩৫ হাজার টাকা ও একটি সোনার গহনা চুরি করেছে সন্দেহে তার স্বামী হাসিনাকে মারপিট করেছে। তবে পরে খুঁজে বাড়িতেই সেগুলো পাওয়া গেছে বলেও তিনি স্বীকার করেন। 
হাসপাতাল সুত্রে জানা যায়, হাসিনার বাম কানে আঘাত লাগায় সে কানে কম শুনছে। এছাড়া পেটে ও হাত-পায়ের বিভিন্ন জায়গায় মারপিটের কারণে কালশিরে দাগ রয়েছে। তার চিকিৎসা চলছে। 
বড়াইগ্রাম থানার ডিউটি অফিসার উপ-পরিদর্শক তারেক জানান, এ ব্যাপারে একটি লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।
সম্পাদনায়-মআকস

কমেন্ট করুন

...

সাম্প্রতিক মন্তব্য

Top