logo
news image

সন্তানকে মায়ের দায়িত্ব বুঝিয়ে দিলেন ওসি

নিজস্ব প্রতিবেদক, সিংড়া (নাটোর)।  ।  
মসিরন বেওয়া, বয়স আনুমানিক ৮৫ বছর। বয়সের ভারে ন্যুজমান। মুত্যুর মুখোমুখি দাঁড়িয়ে যেনো। এ বৃদ্ধা সিংড়া উপজেলার পৌর কবরস্থানের পাশে চকলেট ও বিড়ির দোকান দিয়ে আসছেন দীর্ঘদিন থেকে। কবরের পাশেই কুড়েঘরে বসবাস তাঁর।
অসহায় জীবন যাপনের বিষয়টি সিংড়া প্রেসক্লাবের সাধারন সম্পাদক রাজু আহমেদসহ সাংবাদিকরা সিংড়া থানার ওসিকে জানান। ওসি মনিরুল ইসলাম এ বিষয় সম্পর্কে অবগত হয়ে তিনি সরেজমিনে দেখে দ্রুত বৃদ্ধার ছেলে আবু সাইদকে এনে পুলিশী হেফাজতে নেন এবং মাকে তাঁর জিম্মায় নিয়ে ভরন পোষনের জন্য নির্দেশ দেন। এরপর পুলিশ তাঁর মাকে ও থানায় নিয়ে আসেন। অত:পর ছেলে আবু সাইদ মুচলেকা দেন যে মাকে সে দেখভাল করবে।
সিংড়া উপজেলা রিকসা ভ্যান মালিক সমিতির সাধারন সম্পাদক জাহাঙ্গির আলম জানান, আবু সাইদ তাঁর সমিতির সদস্য, সে রিকসা চালায়। তাঁর মাকে সে দেখভাল করবে মর্মে স্বীকার করেছে, আমরা সিংড়া থানা পুলিশের সহায়তায় তাঁর মাকে তাঁর হাতে তুলে দিয়েছে।
সিংড়া থানার ওসি মনিরুল ইসলাম জানান, বৃদ্ধাকে এ বয়সে দোকানদারি করতে দেখে খুব খারাপ লেগেছে, তাই উদ্দ্যগ নিয়েছি, যাতে এ বয়সে একাকিত্ব নয়, সন্তানের ছায়ায় বাকি জীবন কাটাক।
সিংড়া পৌরসভার মেয়র জান্নাতুল ফেরদৌস জানান, ওই বৃদ্ধার বয়স্কভাতায় তালিকায় নাম না থাকলে ভাতার ব্যবস্থা করে দেয়া হবে।

সাম্প্রতিক মন্তব্য

Top