logo
news image

বড়াইগ্রামে বন্দুকযুদ্ধে মাদক ব্যবসাই নিহত

নিজস্ব প্রতিবেদক, বড়াইগ্রাম।  ।

নাটোরের বড়াইগ্রামে র‌্যাবের সাথে বন্ধুকযুদ্ধে এক মাদক ব্যবসাই নিহত হয়েছে বলে দাবী করেছে র‌্যাব। সোমবার রাত ১:৩০ ঘটিকার সময় বনপাড়া টু কাটাশকোল পাকা রাস্তার পূর্ব পাশে কাটাশকোল ইক্ষু সেন্টারে এ ঘটনা ঘটে। র‌্যাব প্রেস রিলিজের মাধ্যমে জানায় , র‌্যাব-৫ রাজশাহীর  সিপিসি-২ নাটোর ক্যাম্পের একটি টহল দল রাত ১. ১০ ঘটিকার সময় বনপারা বাইপাসে অবস্থান কালে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানতে পারে কতিপয় মাদক ব্যবসায়ী মাদক ক্রয়-বিক্রয় এর উদ্দেশ্যে কাটাশকোল ইক্ষু সেন্টারের সামনে অবস্থান করছে। অতঃপর রাত্রি আনুমানিক ০১:৩০ ঘটিকার দিকে র‌্যাবের টহল দল কাটাশকোল ইক্ষু সেন্টারে পৌছালে কিছু লোকের আনাগোনা দেখতে পায়। র‌্যাবের উপস্থিতি টের পেয়ে ৩-৪ জন ব্যক্তি পালিয়ে যাবার চেষ্টা করলে র‌্যাবের টহল দল নিজেদের পরিচয় দিয়ে আত্মসমর্পনের নির্দেশ দেয়। এ সময় তারা গুলিবর্ষণ করে পালানোর চেষ্টা করলে র‌্যাবও পাল্টা গুলি বর্ষণ করে। উভয় পক্ষের মধ্যে আনুমানিক ৫ মিনিট গুলি বিনিময়  শেষে একজনকে আহত অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখা যায় এবং দলের অপর সদস্যরা পালিয়ে যেতে সক্ষম হয়। আহত ব্যক্তিকে উদ্ধার করে বড়াইগ্রাম উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত ডাক্তার তাকে মৃত বলে ঘোষনা করেন। এ ঘটনায় র‌্যাবের ২ সদস্য আহত হয়েছে বলে দাবী করেছে র‌্যাব। তাদের প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। ঘটনাস্থল হতে একটি  বিদেশী পিস্তল, এক রাউন্ড পিস্তলের তাজা গুলি, পিস্তলের গুলির একটি খালি খোসা, এক পিস্তলের ম্যাগাজিন, পাঁচশত ত্রিশ পিস ইয়াবা ট্যাবলেট, তিন হাজার দুইশত পাঁচ টাকা, একটি চার্জার টর্চ লাইট, ছয় টি পুরাতন স্যান্ডেল, একটি মোবাইল ফোন, দুইটি সিম কার্ড উদ্ধার করা হয়। প্রাথমিক অনুসন্ধানে নিহত ব্যক্তি নাটোর জেলার বড়াইগ্রাম উপজেলার বালিয়া গ্রামের আব্দুস সাত্তারের ছেলে সিরাজুল ইসলাম (৩৪) বলে জানা যায় । তার বিরুদ্ধে নাটোর জেলার বিভিন্ন থানায় চারটি মাদকসহ পাঁচটি মামলা রয়েছে।

সম্পাদনায় : মঅাকস / ১৭.০৯.২০১৮/ ৪৪৬০

সাম্প্রতিক মন্তব্য

Top